বৃহস্পতিবার২৫শে জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ১৯শে মহর্‌রম, ১৪৪৬ হিজরি১০ই শ্রাবণ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

অন্য পুরুষের সঙ্গে পালিয়ে যাওয়ার সময় মাকে হত্যা করেছেন মেয়ে।

ছবি-সংগৃহীত

সংবাদদাতা-মেরিনা বেগমের স্বামী রাসেল ব্যবসার প্রয়োজনে দূরে থাকতেন। সেই সুযোগে স্ত্রী মেরিনা পরকীয়ায় লিপ্ত হয়ে পড়েন। পরকীয়ায় আসক্ত হয়ে ওই পুরুষের সঙ্গে পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা চালালে স্বামী ও মেয়ে এতে বাধা হয়ে দাঁড়ান।
গত রোববার রাতে মেরিনা বাসা থেকে বের হয়ে যেতে চাইলে মেয়ে তামান্না ওড়না দিয়ে মায়ের গলায় প্যাঁচ দিয়ে আটকানোর চেষ্টা করেন। এতে শ্বাসরোধ হয়ে মারা যান মা মেরিনা। খবর পেয়ে সোমবার সকালে মেরিনার মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। ঘটনার পরেই স্বামী রাসেল এবং মেয়ে তামান্নাকে গ্রেফতার করে পুলিশ।
বিষয়টি নিশ্চিত করে মামলার তদন্ত কর্মকর্তা এসআই গোবিন্দ আকর্ষণ। তিনি বলেন, এ ঘটনায় জড়িত রাসেল ও মেয়ে তামান্না নড়াইল আদালতে ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেবেন। এর আগে মঙ্গলবার গৃহবধূর ভাই লিখন বাদী হয়ে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে লোহাগড়া থানায় মামলা দায়ের করেছেন বলেও জানান এসআই।
স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, লোহাগড়ার লক্ষীপাশা গ্রামের ঝিলু মোল্যার ছেলে বিজ্ঞান মোল্যা ওরফে রাসেলের সঙ্গে মেরিনা বেগমের ২০ বছর আগে বিয়ে হয়। তাদের সংসারে হৃদয় ও তামান্না নামে দুটি সন্তান রয়েছে।