বৃহস্পতিবার২৫শে এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ১৬ই শাওয়াল, ১৪৪৫ হিজরি১২ই বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

চট্রগ্রামে মাদ্রাসা ছাত্রের কাছে বাইবেল,তুলকালাম হাটহাজারীতে

মাহমুদুল হাসান।

দেশের সর্ববৃহৎ ও সর্বপ্রাচীন কওমি মাদ্রাসা আল-জামিয়াতুল আহ্লিয়া দারুল উলূম মুঈনুল ইসলামে (হাটহাজারী মাদ্রাসা) মাহমুদুল হাসান (২৫) নামের এক ছাত্রকে ভর্তি জালিয়াতিসহ শৃঙ্খলাবিরোধী কাজে জড়িত থাকার অভিযোগে মাদ্রাসা থেকে বহিষ্কার করা হয়েছে। তবে অভিযোগ উঠেছে ওই ছাত্র জন্মগতভাবেই খৃষ্টান ধর্মালম্বি, তার কাছে বাইবেল পাওয়া গেছে। তবে পুলিশ বলছে- তার বাবা-মা খৃষ্টান হলেও তিনি ২২ বছর বয়সে ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করেছেন। “

;আজ (বৃহস্পতিবার) দুপুরে হাটহাজারী মাদ্রাসায় এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে মাদ্রাসার সাবেক ও বর্তমান ছাত্ররা ওই ছেলেকে খ্রিস্টান ছাত্র দাবি করে লাইভ ও পোস্ট দিয়েছেন।”

;থানা পুলিশ সূত্রে জানা যায়- ওই ছেলে ইসলাম ধর্মালম্বী। তার বাবার নাম কামাল উদ্দিন। তিনি ২২ বছর বয়সে ধর্মান্তরিত হয়ে খ্রিস্টান ধর্ম ছেড়ে সেচ্ছায় ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করেন। বর্তমানে তিনি পার্বত্য জেলা রাঙামাটির কাউখালী উপজেলার বেতবুনিয়ায় অবস্থিত পুলিশ স্পেশাল ট্রেনিং স্কুল (পিএসটিএস) এলাকার একটি মসজিদের ইমামমতি করছেন।”

;পুলিশ সূত্রে আরও জানা যায়- সকালে হিদায়াতুন্নাহু জামাতের ছাত্র মাহমুদুল হাসানের কাছে একটি বাইবেল পাওয়া নিয়ে তাকে খ্রিস্টান ধর্মালম্বী বলে অভিযোগ তোলা হয়। মাদ্রাসার সাবেক ও বর্তমান ছাত্ররা ওই ছেলেকে খ্রিস্টান ছাত্র দাবি করে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে লাইভ ও পোস্ট দিতে শুরু করেন।”

;এক পর্যায়ে ঘটনা ভিন্ন দিকে মোড় নেয় এবং মাদ্রাসার হাজার হাজার শিক্ষার্থী ক্ষোভে উত্তেজিত হয়ে ওঠে। তাই, উত্তেজিত শিক্ষার্থীদের নিয়ন্ত্রণে আনতে ছাত্রকে মাদ্রাসা কর্তৃপক্ষ বহিষ্কার করে।”

;মাহমুদুল হাসান নামের ওই ছাত্র শৃঙ্খলাবিরোধী কাজে জড়িত ছিল এমনটা জানিয়ে হাটহাজারী মাদ্রাসার সহযোগী পরিচালক ও মুহাদ্দিস মুফতি জসিমুদ্দীন বলেন-গত ২২ আগস্ট মঙ্গলবার থেকে হাটহাজারী মাদ্রাসায় চলতি ১৪৪৪-১৪৪৫ হিজরি শিক্ষাবর্ষের সকল জামাতের প্রথম সাময়িক পরীক্ষা শুরু হয়েছে। পরীক্ষার তৃতীয় দিনে হিদায়াতুন্নাহু জামাতের ওই ছাত্র মাহমুদুল হাসানকে মাদ্রাসার অভ্যন্তরীণ আইন ও শৃঙ্খলা বিরোধী কাজে জড়িত বলে প্রমাণ পাওয়ায় বহিষ্কার করা হয়েছে। ”

;সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে বিভ্রান্তিমূলক প্রচারণা থেকে বিরত থাকার জন্য মাদ্রাসার নিজস্ব ফেসবুক পেইজ থেকে সকলের প্রতি আহ্বান জানানো হয়েছে।”

;ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে হাটহাজারী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. মনিরুজ্জামান বলেন-মাদ্রাসা হিদায়াতুন্নাহু জামাতের ছাত্র হাফেজ মাহমুদুল হাসানের কাছে একটি বাইবেল পাওয়া গেছে। ”

;এ ঘটনায় মাদ্রাসার শিক্ষার্থীরা উত্তেজিত হয়ে ওঠে। তাই অদ্ভূত পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে মাদ্রাসা কর্তৃপক্ষ ওই ছাত্রকে বহিষ্কার করেছে এবং তাকে সিএনজি অটোরিক্সায় তার গ্রামের বাড়িতে পৌঁছে দিয়েছে। বর্তমানে মাদ্রাসা পরিস্থিতি শান্ত রয়েছে।;