সোমবার৩০শে জানুয়ারি, ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ৮ই রজব, ১৪৪৪ হিজরি১৬ই মাঘ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

ওসি বোমা বিস্ফোরণে আহত,আতঙ্কে গ্রাম পুরুষশূন্য

জেলা সংবাদদাতা–

মাদারীপুরের কালকিনিতে আধিপত্য বিস্তার নিয়ে সাবেক ও বর্তমান চেয়ারম্যানের সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষ হয়েছে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে গিয়ে বোমা বিস্ফোরণে গুরুতর আহত হয়েছেন থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি), সঙ্গে আরও ৯ জন। এ ঘটনায় ৮৫ জনের নাম উল্লেখ করে এবং অজ্ঞাতসহ উভয়পক্ষের প্রায় তিন শতাধিক লোকের বিরুদ্ধে পুলিশ বাদী হয়ে মামলা করেছে “

এ মামলায় চারজনকে গ্রেপ্তার করে কারাগারে পাঠানো হয়েছে। এরপর থেকে গ্রেপ্তার-আতঙ্কে ওই এলাকা পুরুষশূন্য হয়ে পড়েছে।পুলিশ ও এলাকা সূত্রে জানা যায়-কালকিনির আলীনগর ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) বর্তমান চেয়ারম্যান শাহিদ পারভেজ ও সাবেক চেয়ারম্যান হাফিজুর রহমান মিলন সরদারের লোকজনের মধ্যে গত রোববার দুপুরে এলাকায় আধিপাত্য বিস্তার নিয়ে সংঘর্ষ হয়।”

;এ সময় উভয়পক্ষের লোকজন ওই এলাকায় ১৪টি বাড়ি ভাঙচুর করে এবং অর্ধশতাধিক বোমা বিস্ফোরণ ঘটায়। খবর পেয়ে পুলিশ সদস্যদের সঙ্গে নিয়ে ঘটনাস্থলে যান কালকিনি থানার ওসি মো. শামীম হোসেন। এ সময় একটি বোমা ওসির পায়ের ওপর পড়ে। এতে ওসি গুরুতর আহত হন। তাকে প্রাথমিক অবস্থায় কালকিনি হাসপাতালে নেওয়া হয়। সেখানে অবস্থার অবনতি হলে তাকে ঢাকার পঙ্গু হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।”

;এ হামলার ঘটনায় গত সোমবার কালকিনি থানা পুলিশ বাদী হয়ে উভয়পক্ষের শতাধিক সমর্থকের বিরুদ্ধে দুটি মামলা করে। এ মামলায় টুমচর গ্রামের জসিম (৪০), তানভির হাসান (১৮), নয়ন (২২) ও সাব্বিরকে (১৭) গ্রেপ্তার করে ওই দিনই মাদারীপুর কারাগারে পাঠানো হয়।”

;এ ঘটনার পর থেকে গ্রেপ্তারের আতঙ্কে আলীনগর এলাকা পুরুষশূন্য হয়ে পড়েছে। ওই এলাকার বেশিরভাগ লোকজন ঘরবাড়ি তালাবদ্ধ রেখে গা ঢাকা দিয়েছে। সরেজমিনে গিয়ে এমনটাই দেখা যায়। “

বিষয় জানতে চেয়ারম্যান শাহিদ পারভেজ ও সাবেক চেয়ারম্যান হাফিজুর রহমান মিলনের সঙ্গে একাধিকবার যোগাযোগের চেষ্টা করা হলেও তাদের এলাকায় পাওয়া যায়নি। তাদের ফোনেও পাওয়া যায়নি।কালকিনি থানার ওসির দায়িত্বে থাকা মারগুব তৌহিদ বলেন-আমরা ঘটনাস্থলে পুলিশ মোতায়ন রেখেছি। বর্তমানে পরিস্থিতি শান্ত রয়েছে।,