শনিবার২০শে এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ১১ই শাওয়াল, ১৪৪৫ হিজরি৭ই বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ঠাকুরগাঁওয়ে একই সাথে দুই  শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে কর্মরত এক ব‌্যাক্তি

ঠাকুরগাঁও সংবাদদাতা-–  ঠাকুরগাঁও সদর উপজেলার রুহিয়ায় হরেন্দ্রনাথ রায় নামে এক ব্যক্তির বিরুদ্ধে দুই শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে চাকরি করার অভিযোগ উঠেছে। সরজমিন ঘুরে অভিযোগের সত্যতাও মিলেছে।

জানা গেছে, হরেন্দ্রনাথ রায় বাড়ি ঠাকুরগাঁও উপজেলার ১৪ নং রাজাগাঁও ইউনিয়নের চাপাতি গ্রামে। তিনি  নেকমরদ কারিগরি ও বাণিজ্যিক  মহবিদ্যালয়ের ল্যাব সহকারী হিসাবে কর্মরত আছেন। ওই কলেজে কর্মরত অবস্থায় তিনি ২০১৩ সালে সুপারিনটেনডেন্ট হিসাবে রুহিয়া আর্দশ কারিগরি উচ্চ বিদ্যালয়ে যোগদান করেন। সেই সময় থেকেই তিনি দুই প্রতিষ্ঠানে কর্মরত আছেন।

তবে কলেজে তিনি বেশি উপস্থিত থাকেন। মাঝে মধ্যে তিনি রুহিয়া আর্দশ কারিগরি উচ্চ বিদ্যালয়ে গিয়ে শিক্ষক হাজিরা খাতায় স্বাক্ষর করে আসেন বলে খবর পাওয়া গেছে। নেকমরদ কারিগরি ও বাণিজ্যিক মহাবিদ্যালয়ের অধ্যক্ষ মোঃ নুহেদ আলম বলেন,হরেন্দ্রনাথ রায় আমার প্রতিষ্ঠানের ল্যাব সহকারী। তবে তিনি ঠিকভাবে কলেজে আসেন। এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, হরেন্দ্রনাথ রায় তিনি আরেক স্কুলে চাকরি করেন তা আমার আগে জানা ছিল না।

রুহিয়া আর্দশ কারিগরি উচ্চ বিদ্যালয় সূত্রে জানা গেছে। স্কুলের সুপারিনটেনডেন্ট স্কুলে নিয়মিত না আসায় পাঠদান ব্যাহত হচ্ছে। এতে শিক্ষার্থীদের পরীক্ষার ফলাফলের উপর প্রভাব পড়বে।স্কুল সূত্রে আরো জানা যায়,হরেন্দ্রনাথ রায় স্কুলের সুযোগ নিয়ে আছেন। স্কুলটা এমপিও হলে হয়তো নেকমরদ কারিগরি ও বাণিজ্যিক মহবিদ্যালয়ের ল্যাব সহকারীর পদটি ছেড়ে দেবেন

এ বিষয়ে কারগরি শিক্ষা বোর্ডের সুত্রে জানা যায়  একই সাথে এক  ব্যক্তি দুই প্রতিষ্ঠানের কর্মরত থাকতে পারেন না।

তবে দুই প্রতিষ্ঠানে কর্মরত থাকার বিষয়টি  হরেন্দ্রনাথ রায়ের সাথে মুঠো ফোনে যোগাযোগের চেষ্টা করা হলে মুঠো ফোনটি বন্ধ পাওয়া যায়।