শুক্রবার২২শে সেপ্টেম্বর, ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ৭ই রবিউল আউয়াল, ১৪৪৫ হিজরি৭ই আশ্বিন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

পুত্রবধূ শাশুড়িকে হত্যা করে মাটিতে পুঁতে রাখলেন

বাংলা সংবাদ২৪ ডেক্স–রাজশাহীর জেলার তানোরে বুধবার(২৯ মে) সন্ধ্যায় উপজেলার প্রকাশনগর আদর্শ গুচ্ছগ্রামে মোমেনা বেগম (৪৫) নামে এক নারীকে হত্যা করে বাড়ির আঙিনায় পুঁতে রাখার এ ঘটনা ঘটে।

ঘটনাটি জানাজানি হলে প্রতিবেশিরা সখিনা বেগম (২২) এবং রীনা খাতুন (২৪) নামের দুই পুত্রবধূকে আটকের পর পুলিশে খবর দেয়। রাতে পুলিশ মাটি খুঁড়ে লাশ উদ্ধার করে।

তানোর থানার পরিদর্শক (তদন্ত) রাকিবুল ইসলাম বলেন, ওই বাড়িতে মোমেনা বেগম ও তার ছোট ছেলে মোস্তাফিজুর রহমানের স্ত্রী সখিনা বেগম ছিলেন। মোস্তাফিজুর রহমান ধান কাটার কাজে বর্তমানে খুলনায় অবস্থান করছেন।
তিনি বলেন, আটককৃত দুই পুত্রবধূর মধ্যে সখিনা বেগম নিজেই শাশুড়িকে হত্যা করে মাটিতে পুঁতে রাখার কথা স্বীকার করেছেন। মাটি চাপা দেয়ার পর পাশের বাড়িতে গিয়ে সখিনা তার জা মমিনুলের স্ত্রী রীনাকে বিষয়টি জানায়। এরপর বিষয়টি প্রতিবেশিদের মধ্যে ছড়িয়ে পড়ে।

সন্ধ্যায় স্থানীয় পৌরসভার কাউন্সিলর আবুল বাশারসহ প্রতিবেশিরা গিয়ে মোমেনা বেগমের দুই পুত্রবধু সখিনা ও রীনাকে আটক করে পুলিশে খবর দেয়। জিজ্ঞাসাবাদে সখিনা জানিয়েছেন, দুপুরে বাড়িতে ধান শুকানোর সময় মুরগি এসে ধান খায়।

ওই ঘটনাকে কেন্দ্র করে তার শাশুড়ি মোমেনা বেগম তাকে মারপিট করেন। দুপুরের পরে তার শাশুড়ি ঘুমিয়ে পড়ে। ওই সময় বাঁশ দিয়ে শাশুড়ির মাথায় আঘাত করেন। এর ফলে তিনি মারা যান। এরপর সন্ধ্যায় বাড়ির আঙিনায় গর্ত করে মোমেনাকে মাটি চাপা দেন সখিনা।