রবিবার২৫শে ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ১৫ই শাবান, ১৪৪৫ হিজরি১২ই ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

মানবতাকে যেন আঘাত না করে চতুর্থ শিল্প বিপ্লব : প্রধানমন্ত্রী

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা

মানবতাকে যেন আঘাত করতে না পারে চতুর্থ শিল্প বিপ্লব (৪আইআর) সংশ্লিষ্ট সরঞ্জামগুলো  —এ বিষয়টি নিশ্চিত করার আহ্বান জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।”

;আজ (বৃহস্পতিবার) সুইজারল্যান্ডের জেনেভায় ওয়ার্ল্ড ইকোনমিক ফোরাম (ডব্লিউইএফ) আয়োজিত ‘নিউ ইকোনমি অ্যান্ড সোসাইটি ইন স্মার্ট বাংলাদেশ’ অনুষ্ঠানে এক প্রশ্নের জবাবে প্রধানমন্ত্রী এ আহ্বান জানান।”

;শেখ হাসিনা বলেন-আমাদের নিশ্চিত করতে হবে যে, চতুর্থ শিল্প বিপ্লবের সরঞ্জামগুলোকে যেন আমাদের মানবতাকে আঘাত বা ক্ষুন্ন করে—এমন কাজে নিয়োজিত করা না হয়।অনুষ্ঠানের পর প্রধানমন্ত্রীর স্পিচ রাইটার মো. নজরুল ইসলাম সাংবাদিকদের বলেন- চতুর্থ শিল্প বিপ্লব যাতে সমাজে বিভাজন সৃষ্টি না করে, সে বিষয়টিও নিশ্চিত করার ওপর প্রধানমন্ত্রী জোর দিয়েছেন।”

;প্রধানমন্ত্রী আরও বলেন-আমরা নিশ্চিত করতে চাই যে, ৪আইআর আমাদের সমাজের মধ্যে আরও বিভাজন তৈরি করবে না। এই উদ্দেশ্যে আমাদের আন্তর্জাতিক পর্যায়ে কার্যকর সরকারি-বেসরকারি অংশীদারত্ব গড়ে তুলতে হবে।চতুর্থ শিল্প বিপ্লব ও ভবিষ্যৎ কাজের জন্য দেশের তরুণদের তৈরি করতে বাংলাদেশ সরকার কাজ শুরু করেছে বলেও জানান শেখ হাসিনা।”

;তিনি বলেন-আমি আত্মবিশ্বাসী যে, আমাদের ছেলেমেয়েরা শুধু ৪আইআর-কে শুধু অনুসরণ করবে না, বরং প্রকৃতপক্ষে এর নেতৃত্ব দেবে।দেশের শিক্ষার্থীরা রোবোটিক্সে যে ধরনের উদ্ভাবনী কাজ করছে, তা দেখে উৎসাহবোধ করেন উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী বলেন-আমরা সারা দেশে যে উদ্ভাবন মেলার আয়োজন করে আসছি, সেখানেও তাদের মধ্যে দারুণ উৎসাহ দেখেছি।”

;চতুর্থ শিল্প বিপ্লবের জন্য বাংলাদেশে যথাযথ আইন, নীতি ও প্রাতিষ্ঠানিক কাঠামো তৈরির জন্য সরকার কাজ করছে উল্লেখ করে শেখ হাসিনা বলেন, ‘আমরা কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা, ইন্টারনেট অব থিংস, ন্যানোটেকনোলজি ইত্যাদি বিষয়ে পৃথক জাতীয় কর্ম-কৌশল তৈরি করেছি।