শনিবার২০শে এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ১১ই শাওয়াল, ১৪৪৫ হিজরি৭ই বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

এসআই স্ত্রীকে পেটালেন পুলিশ পরিদর্শক স্বামী

মামলা তুলে নিতে

যশোরে শাহাজাদী আক্তার (৪০) নামের পুলিশের এক উপপরিদর্শককে (এসআই) নির্যাতনের অভিযোগ উঠেছে পুলিশ পরিদর্শক স্বামী কামরুজ্জামানের বিরুদ্ধে। গতকাল (শুক্রবার) রাতে যশোর শহরের খড়কি এলাকার বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে।”

;এসআই শাহজাদী আক্তার যশোর জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের জিআরও সেকশনে কর্মরত আছেন। তার অভিযোগ- স্বামী পুলিশ পরিদর্শক কামরুজ্জামান ঝিনাইদহ পিবিআইয়ে কর্মরত আছেন। তিনি ছুটিতে বাড়ি এসে শাহজাদী আক্তারের ওপর নির্যাতন চালান।আর এ অভিযোগ অস্বীকার করেছেন স্বামী কামরুজ্জামান “

;শাহাজাদী আক্তার বলেন-কামরুজ্জামানের সঙ্গে ২০০০ সালে আমার বিয়ে হয়। আমাদের দুই ছেলে স্কুল ও কলেজে লেখাপড়া করে। যৌতুকের দাবিতে স্বামী কামরুজ্জামান মাঝেমধ্যেই আমাকে শারীরিক ও মানসিক নির্যাতন চালান। এ কারণে তার বিরুদ্ধে যৌতুক আইনে মামলাও করেছি। ছুটিতে বাড়ি এসে কামরুজ্জামান ওই মামলা তুলে নিতে আমাকে চাপ দেন।”

;তিনি আরও বলেন-যৌতুকের মামলা তুলে নিতে অস্বীকার করায় গতকাল শুক্রবার রাতে কামরুজ্জামান ছুরি দিয়ে আমাকে একের পর এক আঘাত করতে থাকেন। ঠেকাতে গেলে আমার মাথায়, হাতেসহ শরীরের বিভিন্ন স্থানে আঘাত লাগে। পরে মেঝেতে ফেলে আমাকে লাঠি দিয়ে এলোপাতাড়ি পেটানোর পাশাপাশি নিচে ফেলে জুতা পরে সারা শরীর পাড়িয়েছেন। পরে ছেলেরা ও কাজের মেয়ে টের পেলে তারা আমাকে রক্ষা করে।”

;এরপর পরিবারের সদস্যরা আমাকে হাসপাতালে ভর্তি করেন। তিন বছর আগে তিনি দ্বিতীয় বিয়েও করেছেন।”

;যশোর ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালের আবাসিক চিকিৎসা কর্মকর্তা (আরএমও) ডা. আব্দুস সামাদ জানান, এসআই শাহাজাদীকে গুরুতর অবস্থায় হাসপাতালে আনা হয়। তার শরীরে একাধিক আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। তিনি বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকদের তত্ত্বাবধানে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।”

;এ ব্যাপারে জনতে চাইলে যশোর কোতোয়ালি মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) তাজুল ইসলাম বলেন-এসআই শাহাজাদীকে নির্যাতনের বিষয়ে আমরা এখনো কোনো অভিযোগ পাইনি। তবে বিষয়টি ডিপার্টমেন্টাল। ঊর্ধ্বতন পুলিশ কর্মকর্তারা বিষয়টি দেখছেন।”

;স্ত্রীকে নির্যাতনের অভিযোগ পুরোপুরি অস্বীকার করে পুলিশ পরিদর্শক কামরুজ্জামান বলেছেন- যে সময় এই ঘটনা ঘটেছে বলে দাবি করা হচ্ছে, তখন আমি বাড়ির বাইরে ছিলাম। শাহজাদী কুপ্রবৃত্তিতে আসক্ত। প্রতিবাদ করায় নানাভাবে আমাকে হেনস্তা করার চেষ্টা চালায়।.