শনিবার২০শে এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ১১ই শাওয়াল, ১৪৪৫ হিজরি৭ই বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

পুলিশের সঙ্গে সংঘর্ষে পঞ্চগড়ে নিহত বিএনপি নেতা

পঞ্চগড়ে বিএনপির গণমিছিলকে কেন্দ্র করে পুলিশ এবং বিএনপি নেতাকর্মীদের মধ্যে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনায় আব্দুর রশিদ আরেফিন (৫১) নামে এক বিএনপি নেতা নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছেন বিএনপি ও পুলিশ সদস্যসহ অন্তত ৭০ জন। আটক করা হয়েছে ১৫ জনকে।”

;আজ (শনিবার) দুপুর আড়াইটায় পঞ্চগড় জেলা বিএনপির কার্যালয়ের সামনে পঞ্চগড়-ঢাকা মহাসড়কে সংঘর্ষ শুরু হয়। দেড় ঘণ্টা ধরে চলে সংঘর্ষ। পরে বিকেল সোয়া ৪টার দিকে পরিস্থিতি স্বাভাবিক হলে যানচলাচল শুরু হয়।”

;নিহত বিএনপি নেতা আব্দুর রশিদ আরেফিনের বাড়ি পঞ্চগড়ের বোদা উপজেলার ময়দানদীঘি ইউনিয়নের পাথরাজ গ্রামে। তিনি ময়দানদীঘি ইউনিয়ন বিএনপির যুগ্ম আহ্বায়ক।”

;জানা গেছে- সরকারের পদত্যাগ, সংসদ বাতিল এবং তত্ত্বাবধায়ক সরকারের অধীনে নির্বাচনসহ ১০ দফা দাবিতে গণমিছিল নিয়ে জেলার বিভিন্ন এলাকা থেকে নেতাকর্মীরা ছোট ছোট মিছিল নিয়ে আজ শনিবার দুপুরে দলীয় কার্যালয়ে জড়ো হয়। পরে গণমিছিল নিয়ে মহাসড়কে দাঁড়াতেই পুলিশ বাধা দেয়। এসময় পুলিশের সঙ্গে বিএনপি নেতাকর্মীদের বাকবিতণ্ডা শুরু হয়। এক পর্যায়ে পুলিশের সঙ্গে বিএনপি নেতাকর্মীদের ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া শুরু হয়।”

;জেলা বিএনপির আহ্বায়ক কমিটির সদস্য অ্যাডভোকেট মির্জা নাজমুল ইসলাম কাজল বলেন-আমাদের শান্তিপূর্ণ মিছিলে পুলিশ বাধা দেয়। এতে আমাদের একজন নিহত হন, আহত হন অনেক নেতাকর্মী। আমরা আন্দোলনের মাধ্যেমে এর জবাব দিবো।”

;এদিকে সংঘর্ষের বিষয়ে পুলিশ কোনো কথা বলতে রাজি হয়নি। তবে একটি সূত্র জানিয়েছে আজ শনিবার রাতে জেলা পুলিশ সংবাদ সম্মেলন করবে বলে ।