শনিবার২০শে এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ১১ই শাওয়াল, ১৪৪৫ হিজরি৭ই বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

গৃহবধূকে গলা কেটে হত্যার পর মরদেহে আগুন- স্বামী পলাতক

নড়াইল সদরের সড়াতলা গ্রামে গৃহবধূ আছিয়া বেগমকে (২২) গলা কেটে হত্যার পর মরদেহে আগুন দিয়ে পুড়িয়ে দেন স্বামী। আজ শুক্রবার দুপুরে এ ঘটনা ঘটে।আছিয়া ওই গ্রামের রনি শেখের (২৬) স্ত্রী। ঘটনার পর রনি পালিয়ে গেছেন। তাদের বায়েজীদ নামে ৩ বছরের একটি ছেলে রয়েছে।”

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানান, প্রায় চার বছর আগে নড়াইলের সড়াতলা গ্রামের রনি শেখের সঙ্গে একই গ্রামের এখলাছ শিকদারের মেয়ে আছিয়ার বিয়ে হয়। বিয়ের পর থেকেই তাদের দাম্পত্য কলহ শুরু হয়। রনির সঙ্গে অন্য মেয়ের পরকীয়ার কারণে তাদের প্রায়ই ঝগড়া বিবাদ লেগে থাকত। এরই জের ধরে আজ দুপুর ১২টার দিকে ঘরের মধ্যে আছিয়াকে গলা কেটে হত্যা করে গায়ে আগুন দিয়ে রনি পালিয়ে যান।

প্রতিবেশিরা জানালা দিয়ে আগুন দেখে চিৎকার করেন এবং আগুন নেভাতে এগিয়ে আসেন। আগুনে আছিয়ার শরীর পুড়ে গেছে। এ ছাড়া ঘরের অন্যান্য জিনিসপত্র পুড়ে ছাই হয়ে গেছে।’

নড়াইল সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাহমুদুর রহমান বলেন, প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে দাম্পত্য কলহের কারণে রনি তার স্ত্রীকে পরিকল্পিতভাবে গলা কেটে ও পুড়িয়ে হত্যা করেছে। রনিকে গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে। নড়াইল সদর হাসপাতালে আছিয়ার ময়নাতদন্ত সম্পন্ন হয়েছে।.