বুধবার২৪শে জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ১৮ই মহর্‌রম, ১৪৪৬ হিজরি৯ই শ্রাবণ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

স্কুল পড়ূয়া মেয়ে বিয়েতে রাজি না হওয়ায় ন‌্যাড়া করল মা

বাংলা সংবাদ২৪ সংবাদদাতা– বগুড়ার শাজাহানপুরে নবম শ্রেণিতে পড়ুয়া মেয়ে বিয়েতে রাজি না হওয়ায় শিকল দিয়ে বেঁধে রেখে মাথা ন্যাড়া করে দিয়েছেন মা। এ ঘটনায় ওই মেয়ে বাদী হয়ে থানায় মামলা দায়ের করলে গতকাল শনিবার রাতে তার মা ও ফুফুকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ।

 রোববার (৫ জানুয়ারী) সকালে আদালতের মাধ্যমে তাদের কারাগারে প্রেরণ করা হয়। ঘটনাটি ঘটেছে উপজেলার খোট্টাপাড়া গ্রামে। মামলার এজাহার সূত্রে জানা গেছে, ওই মেয়ের ইচ্ছার বিরুদ্ধে বিয়ের আয়োজন করলে মেয়েটি লুকিয়ে তার ফুফাতো বোনের বাড়িতে আত্মগোপন করে। ৩১ ডিসেম্বর তার মা মেয়েটিকে জোর করে ফুফাতো বোনের বাড়ি থেকে নিজ বাড়িতে নিয়ে আসেন। কিন্তু বিয়েতে রাজি না হওয়ায় গতকাল শনিবার সকালে শোবার ঘরের খাটের সঙ্গে শিকল দিয়ে বেঁধে তাকে ন্যাড়া করে দেওয়া হয়।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক মেয়েটির পরিবারের একজন সদস্য জানান, মেয়েটি বাবা-মার অবাধ্য ছিল। সে পরিবারের মান-সম্মান হানি করে আসছিল। তাই পরিবারের মান-সম্মান রক্ষায় তাকে বিয়ে দিতে উদ্যোগ নেয় পরিবার। কিন্তু কথা না শোনায় তাকে ন্যাড়া করে দেওয়া হয়। নির্যাতনের শিকার ওই মেয়ে দৈনিক আমাদের সময়কে জানায়, সে পড়ালেখা করতে চায়। কিন্তু তার পরিবার সেটি চায় না। এ কারণে তাকে জোর করে বিয়ে দেওয়ার পরিকল্পনা করে তারা।

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা এসআই রাম জীবন ভৌমিক জানান, পাঁচজনকে আসামি করে মেয়েটি নিজে বাদী হয়ে মামলা দায়ের করেছে। তার মধ্যে মেয়ের মা রূপালী বেগম ও ফুফু সাজেদা বেগমকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।