শনিবার২০শে এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ১১ই শাওয়াল, ১৪৪৫ হিজরি৭ই বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

সাবেক থাই প্রধানমন্ত্রী

১৫ বছর পর দেশে ফিরেই গ্রেপ্তার

১৫ বছর পর থাইল্যান্ডে ফেরার কিছুক্ষণ পরেই আজ মঙ্গলবার গ্রেপ্তার হয়েছেন দেশটির সাবেক প্রধানমন্ত্রী থাকসিন সিনাওয়াত্রা। এর আগে ১৫ বছর তিনি স্বেচ্ছানির্বাসনে ছিলেন। কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আল জাজিরা ও বিবিসির প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়েছে।”

;থাইল্যান্ডের সুপ্রীম কোর্ট থাকসিনকে আট বছরের কারাদণ্ড দিয়েছেন। এক বিবৃতিতে দেশটির সুপ্রীম কোর্ট এ তথ্য জানিয়েছেন।”

;দেশটির খাওসোদ মিডিয়া ও থাই পিবিএসের বরাত দিয়ে আল জাজিরা জানিয়েছে- প্রাইভেট প্লেনে করে সিঙ্গাপুর থেকে ব্যাংককের ডন মুয়েং বিমানবন্দরে মঙ্গলবার সকাল ৯ টার কিছুক্ষণ পরে থাকসিন অবতরণ করেন।এর কিছুক্ষণ পরেই থাকসিনকে গ্রেপ্তার করা হয় এবং তাকে দেশটির সুপ্রীম কোর্টে নিয়ে যাওয়া হয়। ”

;প্রতিবেদনে বলা হয়েছে- তিনটি আলাদা মামলায় থাকসিনের এ সাজা দেওয়া হয়েছে। এর মধ্যে হচ্ছে, ক্ষমতার অপব্যবহার, অবৈধ কাজ এবং রাষ্ট্রীয় এক ব্যাংকে অবৈধভাবে বিদেশি ঋণ নেওয়ার নির্দেশ ও নমিনিদের মাধ্যমে অবৈধভাবে শেয়ার রাখা।”

;এর আগে থাকসিনের বোন ইংলাক সিনাওয়াত্রা যিনিও থাইল্যান্ডের একজন সাবেক প্রধানমন্ত্রী টিকটকে একটি ভিডিও পোস্ট করেন। সেখানে দেখা যায়, থাকসিন লাল রঙয়ের টাই ও ডার্ক স্যুট পড়ে হেঁটে একটি ছোট প্লেনের দিকে যাচ্ছেন।থাকসিনের দেশে ফেরার খবরে হাজার হাজার সমর্থক লাল পোশাক পড়ে উল্লাস করেছেন, নেচেছেন, গেয়েছেন।”

;আগে থেকেই শঙ্কা ছিল, দেশের ফেরার পরেই থাকসিনকে পুলিশ গ্রেপ্তার করতে পারে এবং তিনি ফৌজদারি অপরাধের মুখোমুখি হবেন। শেষমেশ থাকসিনকে আট বছরের কারাদণ্ড দেওয়া হলো।”

;থাইল্যান্ডের সাবেক প্রাক্তন টেলিকমিউনিকেশন টাইকুন থাকসিন ২০০১ থেকে ২০০৬ সাল পর্যন্ত দেশটির ক্ষমতায় ছিলেন। ২০০৬ সালের সামরিক অভ্যুত্থানে ৭৪ বছর বয়সী এই বিলিয়নেয়ারকে ক্ষমতাচ্যুত করা হয়েছিল।”

;পরবর্তী সময়ে থাকসিন ক্ষমতার অপব্যবহারের দায়ে দণ্ডিত হন এবং নির্বাসনে যান। বেশিরভাগ সময়েই তিনি দুবাইতে ছিলেন।;