শুক্রবার২২শে সেপ্টেম্বর, ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ৭ই রবিউল আউয়াল, ১৪৪৫ হিজরি৭ই আশ্বিন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

বাবার হাতে ধরা শিশুকে পিষে দিল দ্রুতগামী ট্রাক

বাংলা সংবাদ২৪ সংবাদদাতা– এবার জেএসসি পরীক্ষার্থী বড় দুই বোন । ওদেরকে বাবার সঙ্গে এগিয়ে দিতে এসেছিল ছোট্ট মাইশা। বয়স মাত্র পাঁচ বছর।বাবার হাত ধরে রাস্তায় হাঁটছিল। বোনদের মতো বড় হওয়ার স্বপ্নের কথাও বলছিল বাবার সঙ্গে। ঠিক সেই মুর্হূতেই পিছন দিক থেকে দ্রুতগামী ট্রাক পিষে দেয় মাইশাকে। তার স্বপ্নগুলো সঙ্গে সঙ্গে শেষ হয়ে যায় ।আজ বুধবার সকালে নেত্রকোনা জেলার পূর্বধলা উপজেলার তোলাপাবই এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

পুলিশ ও এলাকাবাসী জানান, খলিশাউর ইউনিয়নের তোলাপাবই গ্রামের আজিজুল ইসলাম তার বড় দুই মেয়ে জেএসসি পরীক্ষার্থী রিতু আক্তার ও রিয়া আক্তারকে বুধবার সকালে এগিয়ে দিতে পূর্বধলা-শ্যামগঞ্জ সড়কে আসেন। এ সময় সঙ্গে আসে শিশুকন্যা মাইশা আক্তারও।দুই মেয়েকে অটোরিকশায় উঠিয়ে বাড়ি ফিরছেন।

বাবার হাতে হাত ধরেই বাড়ি ফিরছিল মাইশা। বড় বোনদের বিদায় আর পরীক্ষা নিয়ে আলোচনা চলছিল।ঠিক সেই মুর্হূতে একটি ট্রাক পিছন দিক থেকে চাপা দিলে ঘটনাস্থলেই মাইশার মৃত্যু হয়।ঘটনার পরপরই উত্তেজিত এলাকাবাসী পূর্বধলা-শ্যামগঞ্জ সড়ক অবরোধ করেন।

মাইশার হত্যাকারীদের বিচারের দাবি জানিয়ে বিক্ষোভ করেন। খবর পেয়ে পূর্বধলা থানার পুলিশ ও শ্যামগঞ্জ তদন্ত কেন্দ্রের পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে দাবি-দাওয়া মেনে নেয়ার আশ্বাস দিলে এলাকাবাসী অবরোধ প্রত্যাহার করেন। অবরোধকালে দুই পাশে দীর্ঘ যানজটের সৃষ্টি হয়।