শুক্রবার১৯শে এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ১০ই শাওয়াল, ১৪৪৫ হিজরি৬ই বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ওষুধ কোম্পানির প্রতিনিধি পেটালেন চিকিৎসককে

নিজস্ব সংবাদদাতা– নেত্রকোনা জেলার দুর্গাপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ওষুধ কোম্পানির এক প্রতিনিধির বিরুদ্ধে এক মেডিকেল কর্মকর্তাকে মারধরের অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় মেডিকেল কর্মকর্তা ডা. মো. মেহেদী হাসান (৩০) মঙ্গলবার বিকেলে থানায় অভিযোগ করেন “

’পুলিশ ওষুধ কোম্পানীর প্রতিনিধি আতাউল করিম ওরফে মাফুজ মড়লকে (২৮) আটক করেছে। আটক মাফুজ মড়ল উপজেলার চন্ডিগড় মড়ল বাড়ির বাসিন্দা। তিনি রিলায়্যান্স নামক ওষুধ কোম্পানির বিক্রয় প্রতিনিধি পদে কর্মরত। “

 জানা যায়, উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের মেডিকেল অফিসার ডা. মো. মেহেদী হাসান বর্হিঃবিভাগের ১০৩ নম্বর কক্ষে রোগী দেখছিলেন। অফিস চলাকালীন কোনো ওষুধ কোম্পানির প্রতিনিধি হাসপাতালের বর্হিঃবিভাগে প্রবেশ করতে পারবে না মর্মে কঠোর নির্দেশনা রয়েছে।”

”মঙ্গলবার বেলা ১১টার দিকে মাফুজ মড়ল ওই কক্ষে প্রবেশ করেন। ডাক্তারকে রিলায়্যান্স কোম্পানির ওষুধ প্রেসক্রিপশনে লিখে দিতে চাপ প্রয়োগ করেন। চিকিৎসক মেহেদী ওই কোম্পানির ওষুধ লিখতে অপরাগতা প্রকাশ করেন। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে বিক্রয় প্রতিনিধি মাফুজ মড়ল চিকিৎসকের ওপর চড়াও হন এবং একপর্যায়ে কিল-ঘুষিতে ওই চিকিৎসকের শরীরের বিভিন্ন স্থান জখম করেন।”

”পুলিশের অভিযোগ থেকে আরো জানা যায়, এর আগেও মাফুজ মড়ল তার কোম্পানির ওষুধ লেখাকে কেন্দ্র করে স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের বেশ কয়েকজন চিকিৎসককে অপমান, ও হয়রানিসহ ভয়-ভীতি প্রদর্শন করেছিলেন “

’এ ব্যাপারে দুর্গাপুর থানার ওসি মো. শাহনুর এ আলম  বলেন, দুর্গাপুর হাসপাতালের মেডিকেল কর্মকর্তার লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন। মাফুজ মড়লকে আটক করা হয়েছে। মঙ্গলবার সময় অতিবাহিত হওয়ায় আসামিকে আগামীকাল( বুধবার )আদালতে সোপার্দ করা হবে।”